তাসনুভা তিশার তৃতীয় স্বামী হতে বিয়ের প্রস্তাব পাঠানোর হিড়িক

এখনই বিয়ে নিয়ে কিছু ভাবছি না। যদিও একা থাকতে থাকতে ক্লান্ত হয়ে গেছি। আবার এটাও ভাবি একাকী জীবন ভালোই লাগে। শুধু ফেসবুকে মানুষের বিয়ের পোস্ট দেখে

মনে হয় আমা’রও বিয়ে করা উচিত। কিন্তু আগে বিয়ে করে যে কষ্ট পেয়েছি, এখন আর সাহস পাই না। তা ছাড়া বিশ্বা’স করার মতো কাউকে পাচ্ছি না।’—নিজের বিয়ের পরিকল্পনা নিয়ে গণমাধ্যমে এমন বক্তব্য দেন ছোট পর্দার অ’ভিনেত্রী তাসনুভা তিশা। সবকিছু ঠিকই ছিল, কিন্তু তাসনুভা তিশার এই খবর ছড়িয়ে পড়ার পর তার ফেসবুক

মেসেঞ্জারে অনেকেই বিয়ের প্রস্তাব দিচ্ছেন। অনেকে তার কাছে জীবন বৃত্তান্ত পাঠাচ্ছেন। আর এ নিয়ে বেশ বিড়ম্বনায় পড়েছেন তাসনুভা। আর এই বিড়ম্বনার কথা ফেসবুকে এক স্ট্যাটাসে জানিয়েছেন তিনি। তাসনুভা তিশা লিখেছেন—আমি বিয়ে নিয়ে চিন্তা-ভাবনার আশেপাশেও নেই! আমা’র বক্তব্য ভুলভাবে বোঝার কারণে এভাবে খবরটি ছড়িয়েছে। ‘আপনি অতি সাধারণ একজন’ জাতীয় কথাবার্তা/ জীবনবৃত্তান্ত আমাকে মেসেজে পাঠানো দয়া করে বন্ধ করুন। আমি দুঃখিত! তাসনুভা তিশা ব্যক্তিগত জীবনে ব্যবসায়ী ফারজানুল হকের স’ঙ্গে প্রেমের সম্পর্কে জড়িয়েছিলেন। ২০১৪ সালের ২৮ সেপ্টেম্বর তাদের এ সম্পর্ক পরিণয়ে রূপ নেয়। শুরুতে বিয়ের কথা গো’পন রাখলেও পরে তা নিজেই প্রকাশ্যে আনেন তিশা। তারপর ভালোই চলছিল এই দম্পতির জীবন। তাদের ঘর আলো করে আসে পুত্রসন্তান আনুশ। কিন্তু চার বছরের মাথায় তাদের মধ্যে শুরু

হয় তিক্ততা। ২০১৮ সালের ২১ মে ফারজানুল হকের স’ঙ্গে তার আনুষ্ঠানিক বিবাহবিচ্ছেদ হয়। দাম্পত্য কলহ ও বিবাহবিচ্ছেদ তিশার ব্যক্তিগত জীবনে দারুণ প্রভাব ফেলে। অসুস্থ হয়ে হাসপাতালেও ভর্তি ছিলেন তিনি। সবকিছু মিলিয়ে শোবিজ অ’ঙ্গন থেকে অনেকটা আড়ালে চলে গিয়েছিলেন। সব বাধা-বিপত্তি পাশ রেখে আবার ঘুরে দাঁড়ান তিশা। সরব হন অ’ভিনয়ে। চলতি বছরে মুক্তি পাওয়া তার অ’ভিনীত ‘আগস্ট ১৪’ ওয়েব সিরিজটি মুক্তির পর প্রশংসা কুড়ান তিনি। তাসনুভার বিবাহবিচ্ছেদের পর কে’টে গেছে ২ বছরের বেশি সময়।

এখন সন্তান ও অ’ভিনয় নিয়েই ব্যস্ত রয়েছেন তিনি। কিন্তু নতুন করে ঘর বাঁধার বি’ষয়ে কী ভাবছেন এই অ’ভিনেত্রী? আর এ প্রস’ঙ্গে কথা বলেই তৈরি হয়েছে এই বিড়ম্বনা। টিভি নাটকে অ’ভিনয়ের মধ্য দিয়ে পথচলা শুরু তাসনুভা তিশার। এরপর কাজ করেন বিজ্ঞাপনচিত্র, মিউজিক ভিডিওতে। অল্প সময়ের মধ্যেই নির্মাতাদের পছন্দের তালিকায় জায়গা করেন নেন তিনি। অ’ভিনয় করেছেন ‘চল যাই’ নামে একটি চলচ্চিত্রেও। তার ক্যারিয়ারে সবচেয়ে আলোচিত কাজ ‘আগস্ট ১৪’। এতে ‘ডার্ক’ চরিত্রে অ’ভিনয় করে সবার নজর কাড়েন তিনি।